এনআইডি অনলাইন পোর্টালে প্রবেশ

জাতীয় পরিচয়পত্র বা তথ্য-উপাত্ত সংশোধন বা হারানো/ডুপ্লিকেট জাতীয় পরিচয়পত্র প্রাপ্তি সংক্রান্ত কাজেই নয়। এনআইডি/ভোটার নিবন্ধন করেছেন এমন সকল বাংলাদেশী নাগরিকদেরই প্রয়োজন এনআইডি অনলাইন সার্ভিস পোর্টালের একাউন্ট বা ইউজার আইডি

ঘরে বসে জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি ডাউনলোড

এনআইডি কার্ড পেতে নিবন্ধন করেছেন এবং যারা কার্ড রি-ইস্যু/সংশোধনের আবেদনের অনুমোদিত মেসেজ পেয়েছেন; তারা জাতীয় পরিচয়পত্রের পরিমর্জিত কপি পেতে এনআইডি পোর্টালে লগইন করে “ডাউনলোড” মেনু হতে পরিচয়পত্রের কপি গ্রহণ করতে পারবেন।

জাতীয় পরিচয়পত্রের স্বাক্ষর পরিবর্তন

অন্য ডকুমেন্টে প্রদত্ত স্বাক্ষরের সাথে অমিল থাকলে যেমন, পাসপোর্ট, ব্যাংক একাউন্ট ইত্যাদির সাথে মিল করার জন্য প্রয়োজন হতে পারে স্বাক্ষর পরিবর্তন

NID কার্ডের ছবি পরিবর্তন

বয়সের সাথে মানুষের চেহারা বা মুখায়ববের পরিবর্তন হয়ে থাকে আর বেশীরভাগ নাগরিকের পরিচয় নিবন্ধনের সময় তোলা ছবির বয়স প্রায় ১৩/১৪ বছর তাও আবার কম রেজুলেশনের ওয়েবক্যামে। তাই ছবির মান ভালো হওয়ার সম্ভাবনা কম।
ঐ সময়ে বিভিন্ন স্কুল/কমিউনিটি সেন্টার/ইউনিয়ন কমপ্লেক্স এ ভিড়ের মধ্যে তোলা ছবি অনেক তাড়াহুড়া ও অদক্ষ হাতের এজন্য ছবির মান তেমন ভালো হয়নি। এখন যারা ছবি তুলে তারা আগের তুলনায় অনেকটাই দক্ষ ও অভিজ্ঞ এবং বর্তমানে হাই রেজুলেশনের উন্নতমানের ডিজিটাল ক্যামেরা ব্যবহার করে ছবি তোলা হয় এতে ছবির মান আগের তুলনায় অনেক ভালো হয়। এছাড়া ছবি পরিবর্তন করতে হলে এখন আপনিও পছন্দসই পোশাকে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিয়ে অফিসে যেতে পারবেন, তাই এখনকার ছবি ভালো হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে বেশী।