শিকলবন্ধী করে আটকে রাখায় ৯৯৯ এ ফোন করে বাবা-মা কে গ্রেফতার করালো সাদিয়া নামের নারায়ণগঞ্জের এক তরুনী


অনেক দিন ধরে আমি বন্দী, আমাকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে! অনেকদিন বন্ধি থাকায় এবং শিকল খুলতে না পারায় প্রেমিকের পরামর্শে ৯৯৯ এ ফোন করে পুলিশকে জানায় তরুনী । পুলিশ ফতুল্লা শাহজাহান রোলিং মিল এলাকার ভাড়া বাসা থেকে ৮ মে বুধবার ওই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে। এঘটনায় ঐ তরুনীর বাবা মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীন ওই তরুণী বাবা-মার বাধা সত্তেও সাগর নামের হিন্দু এক ছেলের জন্য পাগল হয়ে বার বার তার কাছে ছুটে যাওয়ায় কলেজ পড়ুয়া ঐ তরুণীকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখেন তার মা-বাবা। বন্ধীদশা থেকে মূক্ত করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিয়েছে পুলিশ। পুলিশ ফতুল্লা শাহজাহান রি-রোলিং মিল এলাকার ভাড়া বাসা থেকে ৮ মে ২০১৯ বুধবার ওই কলেজছাত্রীকে উদ্ধার করে। এঘটনায় ঐ তরুনীর বাবা মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীন ওই তরুণী বাবা-মার বাধা সত্ত্বেও সাগর নামের হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক ছেলের জন্য পাগল হয়ে বার বার তার কাছে ছুটে যাওয়ায় কলেজ পড়ুয়া ঐ তরুণীকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখেন তার মা-বাবা। বন্ধীদশা থেকে মূক্ত করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় সাদিয়া আক্তার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। আদালত তার জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তার নিজ জিম্মায় তাকে ছেড়ে দিয়েছেন। প্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখায় দণ্ডবিধি আইনের ৩৪২ ধারায় অপরাধে ঐ মামলায় মেয়ের বাবা-মাকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায় পুলিশ হয়েছে।

4 Replies to “শিকলবন্ধী করে আটকে রাখায় ৯৯৯ এ ফোন করে বাবা-মা কে গ্রেফতার করালো সাদিয়া নামের নারায়ণগঞ্জের এক তরুনী”

Comments are closed.