এনআইডি অনলাইন কপি ও এনআইডি ভেরিফিকেশন কপি

নির্বাচন কমিশন এর ওয়েবসাইটে পরিচয় নিবন্ধনের ইউজার হিসেবে সাইন-আপ করে দেখার সুযোগ রয়েছে নিজের সমুদয় ডাটা। ইউজার হিসেবে লগইন করে সমুদয় ডাটা দেখা ছাড়াও পরিচয়পত্রের বিকল্প একটি অন-লাইন কপি প্রিন্ট করে নেয়া যায়। পরিচয় নিবন্ধন বা ভোটার হওয়ার সময় প্রদত্ত তথ্যের আলোকে তৈরী করা হয়েছে এনআইডি ডাটাবেজ। অনেক সময় এই ডাটায় কোন তথ্য বা বর্ণনা ভুল এন্ট্রি হয়ে থাকতে পারে।

এনআইডি অনলাইন কপি বা ভেরিফিকেশন কপির ব্যবহারযোগ্যতা

এনআইডি অনলাইন কপি পরিচয়পত্রের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার করা যায়। কারণ যে কোন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান চাইলে এর সত্যতা যাচাই করতে পারেন অনলাইনে। এছাড়া আবেদনকারী তার জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গেলে বা কোন সংশোধন প্রয়োজন হলেও অনলাইনে আবেদন জমা করতে পারবেন এই একাউন্ট হতেই। এতে প্রতিটি ইউজার লগ এবং ট্রাকিং সুবিধা রয়েছে।

এছাড়া নির্বাচন কমিশনের অফিস হতে তাদের নিজস্ব সাইট হতে অথবা নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠানসমুহ তাদের পোর্টাল বা এপিআই ব্যবহার করে একটি ভেরিভিকেশন কপি বের করে নিতে পারেন। অনলাইন কপির ন্যায় এটি ব্যবহার করা যাবে বিভিন্ন সেবা নেয়ার ক্ষেত্রে।

2 Replies to “এনআইডি অনলাইন কপি ও এনআইডি ভেরিফিকেশন কপি”

  1. আমি 2019 নতুন ভোটার হইছি কিন্তু আমি অনলাইনে আইডি কার্ড তুলতে পারছি না কেউ আমার স্লিপ নাম্বার দিয়ে ঢুকে পাসওয়ার্ড ফোন নাম্বার দিয়ে দিছে। এখন আমি কি ভাবে আইডি কার্ড তুলবো

Comments are closed.